spot_img
Homeবিশেষ আয়োজনঅপরাধ ও দূর্নীতিডাক্তারের আত্মহননঃ“বিচার নাহলে,আমি আর কোন রোগী দেখব না, এদেশে সবচেয়ে বড় পাপ...

ডাক্তারের আত্মহননঃ“বিচার নাহলে,আমি আর কোন রোগী দেখব না, এদেশে সবচেয়ে বড় পাপ ক্ষমতাশীল না হওয়া ”

আমি ৩৯ বিসিএস এ নিয়োগপ্রাপ্ত একজন মেডিকেল অফিসার । উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স দিরাই , সুনামগঞ্জ এ কর্মরত। আজকে সকালে ইমার্জেন্সিতে ডিউটিতে থাকাকালীন সকাল ৬.২০-৬.৩০ টার দিকে রাজিব নামে একজন এসে বলল , তার সাথে বাসায় যেতে হবে উপজেলা চেয়ারম্যান অসুস্থ।সে উপজেলা চেয়ারম্যানের ভাগিনা৷ আমি বললাম , আমি ইমার্জেন্সিতে ডিউটিতে, বাসায় যেতে পারব না৷ ইমারজেন্সি খালি রেখে যাওয়া যাবে না৷ উনাদের UHFPO স্যারের সাথে যোগাযোগ করতে বললাম।যদি না যাবেন তো রাস্তায় নিয়ে পিটাবো।

ইমারজেন্সি চেয়ার লাথি দিয়ে ফেলে দিল একজন ,  আরেকজন মসজিদের দান বাক্স টেবিলে বাড়ি দিয়ে বলল,”এটা আমার মাথায় মা’রবে পরেরবার ”।

এরকম করে ১৫-২০ মিনিট গালিগালাজ করার পর UHFPO স্যার সহ আমার কলিগরা আসে। এই তিনজনকে ও গালিগালাজ করে৷
তারপর UHFPO স্যার এদের সাথে একজন ডাক্তারকে বাসায় পাঠিয়ে পরিস্থিতি শান্ত করেন৷
এখন কথা হল, আমি ইমারজেন্সি ছেড়ে যেতে পারতাম, কিন্তু তখন যদি একজন শ্বাসকষ্টের রোগী আসতেন,তখন ইমারজেন্সিতে কে রোগী দেখত ? চেয়ারম্যান সাহেবের ভাই, ছেলে আর ভাগিনা???আমি যাইনি, তাই ওনারা হুমকি দিয়েছেন৷

এই ম’হামারীর সময়ে আমরা একটু ঝুঁকি নিয়ে কাজ করছি, এর মাঝে এই রকম হুমকি,গালাগালি শুনলে আর কাজ করতে ইচ্ছে করে না৷
তখন মনে হয়- এদেশে সবচেয়ে বড় পাপ ক্ষমতাশালী না হওয়া,দ্বিতীয় পাপ ডাক্তার হওয়া৷

তবে এর কোন বিচার নাহলে, আমি আর কোন রোগী দেখব না৷ It’s loud and clear. (ফেসবুক ওয়াল থেকে সংগৃহীত)

RELATED ARTICLES
- Advertisment -spot_img

Most Popular

Recent Comments